বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নওগাঁ জেলাসহ বিভিন্ন উপজেলায় মোহাধুমধামে চৈত্র মাসে শুক্লপক্ষে বাসন্তী পূজা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নওগাঁ ঐতিহ্যবাহী ৫ শ বছরের পুরনো রঘুনাথ মন্দিরে রামনবমী জন্ম উৎসব উপলক্ষে ভক্তদের ঢল নেমেছে কালাইয়ে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী-২০২৪ অনুষ্ঠিত বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় তীব্র গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন কালাইয়ে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী-২৪ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নওগাঁর মহাদেবপুরে বিএনপি ও জামাতনেতা সহ ২১ জনের মনোনয় পত্র দাখিল বগুড়ায় ২২ কেজি গাঁজাসহ ২ জন গ্রেফতার তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ কালাইয়ের জনগণ দুপচাঁচিয়ায় মাদক সেবনের সময় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার ৫ শোক সংবাদ! শোক সংবাদ!! নওগাঁর আত্রাই উপজেলা বিএনপির নয় নেতাকর্মীকে কারাগারে প্রেরণ নওগাঁর ইয়াদ আলীর মোড়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু নওগাঁয় অতি দরিদ্রদের জন্য ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচিতে আড়াই কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছে নওগাঁয় শশত্রুতার জের ধরে ঘাস মারা বিষ প্রয়োগ করে ৪ বিঘা জমির ধান পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ দুপচাঁচিয়ায় পল্লীপ্রাণী চিকিৎসকের পিতার ইন্তেকাল কালাইয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৩ জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল কালাইয়ে ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপিত ক্ষেতলালের সরকারি ছাঈদ আলতাফুন্নেছা কলেজে ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস-২০২৪ অনুষ্ঠিত নওগাঁয় চাইনিজ কুড়াল সহ কিশোর গ্যাং এর সদস্য আটক অতঃপর বয়স কম হওয়ায় তাকে ছেড়ে দিল নওগাঁ তিন দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার শুভউদ্ধোধন করেন এমপি সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবতী সুরেন

নতুন বাড়ি পেতে যাচ্ছেন বিশ্বের নিঃসঙ্গতম নারী

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৪১ বার পঠিত

নতুন বাড়ি পেতে যাচ্ছেন বিশ্বের নিঃসঙ্গতম নারী। রুশ ইস্পাত ব্যবসায়ী ওলেগ দিরপাস্কার অর্থায়ণে এই বাড়িটি নির্মাণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য মিরর।

আগাফায়া লিকোভা (৭৬) নামের ওই নারী বাস করেন রাশিয়ার সাইবেরিয়ার দুর্গম পার্বত্য অঞ্চলে। জোসেফ স্ট্যালিনের আমলে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার হয়ে ১৯৩৬ সালে পরিবারের সদস্যরা পালিয়ে এখানে চলে এসেছিলেন। জায়গাটি এতোটাই দূরে ও দুর্গম অঞ্চলে যে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ হয়ে যাওয়ার খবরও তারা জানতে পারেননি।পরিবারের অন্য সদস্যদের মৃত্যুর পর সেখানেই একাকী বাস করছেন আগাফায়া। তার নিকটতম প্রতিবেশীর বাস কয়েকশ মাইল দূরে।

এখনও খাবারের জন্য শস্য নিজেই উৎপাদন করেন এই বৃদ্ধা। দিনের অধিকাংশ সময় তিনি বাইবেল পড়ে কাটিয়ে দেন। তিনি যে বাড়িটিতে বাস করতেন সেটি বাবা ও ভাই নির্মাণ করেছিল। তবে অনেক পুরোনো বাড়ি হওয়া সেটি নড়বড়ে হয়ে গেছে। আগফায়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় ওই বাড়িটিতে তার বসবাস ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছিল।

স্থানীয় কর্মকর্তারা মাঝেমাঝে আগাফায়ার খোঁজখবর নিতে যান। তেমনি এক কর্মকর্তা আলেক্সান্ডার জানান, এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হনননি আগাফায়া।

তিনি বলেন, ‘কোনো ভাইরাস নয়-তিনি হচ্ছেন মোগলির মতো, যে কখনো আধুনিক সংক্রামক বা রোগবালাইয়ের শিকার হয়নি।’

সত্তরের দশকে দুর্ঘটনাক্রমে এক দল সোভিয়েত ভূতত্ববিদ আগাফায়াদের বাড়িটি চিহ্নিত করতে সক্ষম হন। ১৯৭৮ সালে দলটি ওই বাড়িতে যাওয়ার পর মারা যায় আগাফায়ার বাবা ও ভাই। এই দলেরই এক সদস্যের ছেলে নিকোলাই সিদভ। তিনি প্রতিবছর শীতকালে আগাফায়ার কাছে সাহায্য পাঠান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By cinn24.com
themesbazar24752150