রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১০:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হিউম্যান এইড এর পরিদর্শনে “ফ্রী কোরআন শিক্ষার আসর”! শুদ্ধানন্দ মহাথের এর প্রয়াণ দিবস আজঃ বাংলার সংগীত পরিচালক শেখ সাদী খানের শুভ জন্মদিন নওগাঁ প্রমিলা দেবীর ২টি কাব্য গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে জয়পুরহাটের জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারে নবাগত লাইব্রেরিয়ান যোগদান করেছেন দুপচাঁচিয়ায় চুরি মামলা তিন আসামি সহ গ্রেফতার ছয় যশোর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহীন আর নেই নওগাঁর ঈশ্বর লক্ষীপুর গভীর নলকূপের ঘরে তালা লাগিয়ে জবর দখলের চেষ্টা গলাচিপার উলানিয়া শ্রী শ্রী রাধা গবিন্দ মন্দিরে পরমপ্রেমময় শ্রী শ্রী ঠাকুর অনুকূলচন্দ্রের ১৩৬তম শুভ জন্মমহোৎসব উপলক্ষে সংগীতানুষ্ঠান ও ধর্ম সভার আয়োজন করা হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে চান আবিদা সুলতানা যূথী লালমনিরহাট বুড়িমারি সড়কে মৃত্যুর মিছিল, বেপরোয়া ট্রাকের নিয়ন্ত্রন নেই ট্রাফিক বিভাগের বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় জাতীয় বীমা দিবস পালিত বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় চোর চক্রের তিন সদস্য সহ গ্রেফতার চার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে আগুন থামলেও থামেনি এতিমদের আত্বনাত ও আহাজারি ১০ লক্ষাধীক টাকা ক্ষতি সাধন জয়পুরহাটের জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারে নবাগত লাইব্রেরিয়ান যোগদান করেছেন ইসলামপুরে গণসংযোগ করেছে আবিদা সুলতানা যূথী ইসলামপুরে মিথ্যা মামলায় হয়রানি শিকার ভুক্ত ভুগি পরিবার শিক্ষকের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত, তদন্তে কমিটি বেওয়ারিশ সেবা ফাউন্ডেশনের আয়োজনে অন্ধ হাফেজদের নিয়ে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর রেজিষ্ট্রেশন চলছে নওগাঁয় ৫৫ বছর বয়সী কোহিনুরকে বাবার বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিল প্রকৌশলী মোয়াজ্জিম‌ হোসেন

ঘাতক ফারুকের আস্ফালন: ‘পারলে বিচার করুক’

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০
  • ৪৪০ বার পঠিত

Cinn ডেস্ক: ১৯৭৬ সালের ৩০ মে লন্ডনের সানডে টাইমস পত্রিকায় কর্নেল (অব.) সৈয়দ ফারুকুর রহমান লিখেছিলেন, ‘আমি মুজিব হত্যায় সহায়তা করেছি, পারলে আমার বিচার করুক।’ আসলে ফারুক বঙ্গবন্ধু হত্যায় সহায়তা করেননি। তিনিই ছিলেন এই হত্যার প্রধান হোতা। আর বিলম্বে হলেও ঘাতকদের বিচার হয়েছিল।

ফারুক চ্যালেঞ্জটি ছুড়ে দিয়েছিলেন জিয়াউর রহমান সরকারের প্রতি। তত দিনে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী ফারুক-রশিদ চক্র দেশ থেকে বিতাড়িত হয়েছে। তারা আশির দশকে এরশাদের প্ররোচনায় দেশে এসে ফ্রিডম পার্টি প্রতিষ্ঠা করে। এরশাদের পতনের পরও খুনি চক্র দেশে অবস্থান করেছিল। জাতীয় পার্টি ও বিএনপি সরকার আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে তাদের ব্যবহার করেছে। এরশাদ নিজের ভোটারবিহীন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন জায়েজ করতে ফারুককে প্রার্থী করেছিলেন। আর ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির একতরফা নির্বাচনে আবদুর রশিদকে জিতিয়ে আনা হয়েছিল। এরপর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে ১২ জুনের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে ইনডেমনিটি রহিত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারপ্রক্রিয়া শুরু করে। রশিদ তাঁর আগেই দেশ ত্যাগ করেন। কিন্তু ফারুকসহ বাকি পাঁচজনকে ফাঁসির দড়িতে ঝুলতে হয়। রশীদসহ দণ্ডিত পাঁচ আসামি বিদেশে পলাতক।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By cinn24.com
themesbazar24752150