শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১১:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বেওয়ারিশ সেবা ফাউন্ডেশনের আয়োজনে অন্ধ হাফেজদের নিয়ে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা ২০২৪ এর রেজিষ্ট্রেশন চলছে নওগাঁয় ৫৫ বছর বয়সী কোহিনুরকে বাবার বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিল প্রকৌশলী মোয়াজ্জিম‌ হোসেন নওগাঁ দ্রুত বিচার পাওয়া জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে গ্রাম আদালত নওগাঁ গৌরশাহী মধ্যপাড়ায় আগুনে পুড়ে আলতাফ হোসেন নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নব-নির্বাচিত এমপির সাথে সৌজন্য সাক্ষাত ও বোরো ধানবীজের স্কীম পরিদর্শন করছেন বিএডিসি বগুড়া জোনের উপ-পরিচালক নওগাঁ মহিলা আওয়ামী লীগের ৫৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত নওগাঁর আত্রাই নদী থেকে বালু তোলায় ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন দেখার কেউ নেই নওগাঁ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে চার প্রতিষ্ঠানকে ৫ হাজার চারশত টাকা জরিমানা কালাইয়ে জাতীয় বীমা দিবস ২০২৪ পালিত নওগাঁর একুশে পরিষদের সন্মানিত উপদেষ্টা অধ্যাপক নুরুল হক আর নেই নওগাঁয় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আদালত নওগাঁ বাস্তবায়ন ইরিবোরো সমলয় চাষের প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস পরিদর্শন করেন মতিউর রহমান গাইবান্ধায় হয়ে গেল লোকজ সাংস্কৃতিক উৎসব মানবসেবায় এগিয়ে এলেন মধুপুর উপজেলা প্রেসক্লাব দুপচাঁচিয়া থানা পুলিশের অভিযানে নকল স্বর্ণে মূর্তির আসামি সহ পাঁচজন গ্রেফতার রায়কালী উন্নয়ন ফোরামের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পেইন কালাইয়ে শিক্ষকের পিতার ইন্তেকালে শোক প্রকাশ নওগাঁ ব্রিটিশ আমলের ২০০ বছরের পুরাতন মসজিদের সন্ধান মিলেছে হাতিমন্ডালা গ্রামে নওগাঁ পাওয়ার টিলার এর ধাক্কায় জিল্লুর রহমান নামে এক বৃদ্ধের মর্মান্তিক মৃত্যু ভারতবর্ষের প্রথম রাষ্ট্রপতি ড, রাজেন্দ্র প্রসাদ এর প্রয়াণ দিবস আজঃ

শার্শায় করোনা রোগী প্রকাশ্যে দোকানদারি: এলাকায় আতঙ্ক

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ১৭৭ বার পঠিত

শার্শার জামতলা বাজারে শফিকুল ইসলাম টোটন (৫০) নামে এক মিষ্টির দোকানি করোনা পজেটিভ শনাক্ত হওয়ার পরও প্রকাশ্যে দোকানদারি করে যাচ্ছেন। দেখার কেউ নেই। প্রশাসন তার বাড়ি বা দোকান এখনো লকডাউনের আওতায় না আনায় এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

শফিকুল ইসলামের বাড়ি বাগআঁচড়া ইউনিয়নের টেংরা গ্রামে। নাভারন-সাতক্ষীরা মহাসড়কের জামতলা বাজারের পশ্চিম পাশে ‘সজীব মিষ্টান্ন ভান্ডার’-এর মালিক শফিকুল ইসলামের শরীরে গত ২৫ জুন করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। শার্শা উপজেলা হাসপাতালে নমুনা (ক্রমিক নম্বর-২৭) দেওয়ার পর পরীক্ষাগার থেকে তার পজেটিভ ফল আসে।

তাকে ও স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়। তারপরও তিনি মিষ্টির দোকানে দেদার্ছে বসছেন। অভিযোগ রয়েছে, এলাকায় করোনা পরীক্ষা করে যাদের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে তাদের কারো বাড়ি প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখনো লকডাউন করা হয়নি। যে কারণে তাদের অনেকেই বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। শফিকুল ইসলাম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তবে তিনি বলেন, ‘আমার করোনা হয়েছিল। এখন সেরে গেছে। তাই দোকানদারি করছি।’ কিন্তু করোনা নেগেটীভ ফলাফল দেখাতে পারেনি।

মাত্র চার দিনের মাথায় করোনা নেগেটিভ হয় কীভাবে?- এমন প্রশ্নে তিনি কোনো জবাব না দিয়ে ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। এ ব্যাপারে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার ইউসুফ আলী বলেন, ‘আমরা প্রতিদিনের পরীক্ষার ফলাফল উপজেলা প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দিই। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মোবাইল ফোনে জানিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা নেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে থাকি।

ওই লোক আক্রান্ত হয়েও কীভাবে দোকানদারি করছে- এটা আমার জানার বাইরে।’ যোগাযোগ করা হলে শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা বলেন, ‘কেন তার বাড়ি দোকান লকডাউন করা হয়নি সেটা আমার নলেজে নেই। আপনি বললেন, আমি এখনই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’#

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By cinn24.com
themesbazar24752150